ভিয়েনার হাসপাতালে ব্যবহৃত অ্যান্টি-কোভিড -১৯ ওষুধ বায়োটেক ড্রাগস FX06 জার্মানিতে সাফল্য !

১ অক্টোবর থেকে ভিয়েনায় ফ্রি সিজোনাল ফ্লু টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ জার্মানির ২টি বিশ্ববিদ্যালয় ক্লিনিকে ভিয়েনায় চর্মরোগে ব্যবহৃত বায়োটেক ড্রাগ (ওষুধ) FX06,ছয়জন গুরুতর অসুস্থ কোভিড-১৯ রোগীর চিকিৎসায় ব্যবহার করে সফলতা পাওয়া গেছে বলে সংবাদ সংস্থা এপিএ জানিয়েছেন।

মূলত ইউনিভার্সিটি চর্মাটোলজি ক্লিনিকের (MedUni Wien/AKH) গবেষণা থেকে আসা ওষুধটির ব্যবহারের ফলে ভিয়েনার জেনারেল হাসপাতালে কোভিড-১৯ আক্রান্ত গুরুতর চারজনকে সুস্থ করা সম্ভব হয়েছিল। ভিয়েনার জেনারেল হাসপাতাল (AKH) এর বিশ্ববিদ্যালয় ক্লিনিকের পর্যালোচনার অধীনে নিবিড় পরিচর্যা(আইসিইউ) বিশেষজ্ঞ জার্নাল “ক্রিটিকাল কেয়ার” তে কিছুদিন আগে সামগ্রিক ইতিবাচক ফলাফল প্রকাশিত হয়েছিল।

অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ কে “বায়োটেক সংস্থা ভিয়েনেস ও বায়োটেক সংস্থা এমসিএইচই/F4 ফার্মার ব্যবস্থাপনা পরিচালক থমাস স্টেইনার জানান,”আমরা ইতিমধ্যে ফরাসী কর্তৃপক্ষের কাছে ক্লিনিকাল স্টাডির অনুমোদন জমা দিয়েছি। অস্ট্রিয়া ও জার্মানিতে প্রায় ৪০ জন কোভিড -১৯ রোগী (ভিয়েনা, ফ্রাঙ্কফুর্ট এবং ওয়ার্জবার্গের বিশ্ববিদ্যালয় ক্লিনিকসমূহ) এর সাথে দ্বিতীয় ডাবল-ব্লাইন্ড ক্লিনিকাল স্টাডি করা হবে।” আমরা এখনও অর্থায়নের জন্য লড়াই করছি। আমরা আশা করি আমরা অস্ট্রিয়ান সরকারের কাছ থেকেও সহায়তা পাবো। ” বায়োটেক সক্রিয় উপাদানটির সমস্ত অধিকার মালিকানাধীন সংস্থা।

FX06 ভিয়েনার জেনারেল হাসপাতালের বিশ্ববিদ্যালয় ক্লিনিকে উৎপাদিত একটি চর্মরোগের ওষুধ হিসাবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এটি ফাইব্রিনের একটি উপাদান যা 2000 এ চিহ্নিত একটি পেপটাইড। এটির ব্যবহার – অন্যান্য অনেকগুলি সম্ভাব্য রোগের মধ্যে যেমন, অত্যন্ত গুরুতর কোভিড -১৯ ফুসফুসের সমস্যার ক্ষেত্রে “সিল” কোষ “ফুটো” হয়ে গেছে এবং তীব্র ফুসফুস ব্যর্থতার (এআরডিএস) এডেমার সাথে লড়াই করে। স্পষ্টতই একটি শক্তিশালী অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি প্রভাব রয়েছে। ২০১৪ সালেও, ইবোলা আক্রান্তদের সাথে জার্মানিতে থেরাপিউটিক পরীক্ষায় এই ওষুধটির ব্যবহার করে সফলতা পাওয়া গিয়েছিল। এই ওষুধটি চর্মরোগের সাথে সাথে ফুসফুসের যাবতীয় সমস্যার সমাধানেও বেশ কার্যকর বলে প্রমাণিত হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা সাধারণ বলে থাকেন ফুসফুসে রক্ত প্রবাহের সমস্যা থেকেই বিভিন্ন চর্মরোগের উৎপত্তি হয়ে থাকে।

এদিকে আজ বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর থেকে ভিয়েনায় সরকার ঘোষিত ফ্রি সিজোনাল ফ্লু টিকা দেওয়া দেওয়া শুরু হয়েছে। ভিয়েনার মেয়র মিখাইল লুডভিগ ও ভিয়েনার স্বাস্থ্য কাউন্সিলর পিটার হ্যাকার সকালে ভিয়েনার এক নাম্বার ডিস্ট্রিক্টের Karlsplatz এর উদ্বোধন করেন। এই পর্যন্ত মোট ৪২,০০০ ভিয়েনাবাসী নিজেদের নাম নিবন্ধন করেছেন। হাউজ চিকিৎসকদের মাধ্যমেই সাধারণত এই টিকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে ভিয়েনার মেয়র মিখাইল লুডভিগ বলেন “যদি আপনারা এই সিজোনাল ফ্লুর টিকা দেন তাহলে একটি ভাইরাস থেকে নিরাপদ থেকে করোনাভাইরাসের সাথে মোকাবেলার জন্য যথেষ্ট রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শরীরে তৈরী করতে পারবেন।”

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৮৭৩ জন এবং ৩ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। আজ রাজধানী ভিয়েনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৪০২ জন। এই পর্যন্ত অস্ট্রিয়ার মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৫,৬৮৬ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৮০২ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ৩৬,৪৭৬ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৮,৪০৮ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আছেন ৯০ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৪৯৩ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 

 8,896 total views,  1 views today