H&M বিশ্বব্যাপী তাদের ২৫০টি শাখা বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে !

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ সুইডিশ ফ্যাশন খুচরা বিক্রেতা Hennes & Mouritz (H&M) এর শাখা নেটওয়ার্কটি কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। করোনার কারনে ব্যবসা মন্দার জন্য এই বৎসর তারা বিশ্বব্যাপী তাদের ২৫০টি শাখা বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছেন। সংস্থাটি ১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার তৃতীয় অর্থবছরের প্রান্তিকের পরিসংখ্যান সহ তাদের এই শাখা কমানোর ঘোষণা একসাথে দিয়েছেন। বর্তমানে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে তাদের প্রায় ৫,০০০ শাখা রহিয়াছে। এর মধ্যে আবার ১৬৬ টি শাখা অনেকদিন থেকেই বন্ধ রয়েছে। সমগ্র অস্ট্রিয়ায় H&M এর ৮৭ টি দোকান বা শাখা রহিয়াছে। পৃথিবীর ৭৪ টি দেশে তাদের শাখা রয়েছে। এক হিসাবে বলা হয়েছে বিক্রয় শতকরা ১৬ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। জার্মানিতে সংস্থাটিকে বিভিন্ন সময়ে শ্রম আইন ভঙ্গের জন্য গত কয়েক বৎসরে প্রায় ৩৫.৩ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা দিতে হয়েছে।

করোনার প্রথম প্রাদুর্ভাবের অর্থনৈতিক সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই প্রায় সমগ্র ইউরোপ সহ বিশ্বে করোনার দ্বিতীয়বারের প্রাদুর্ভাবের ফলে বিভিন্ন দেশে জরুরী অবস্থা,লকডাউন সহ বিভিন্ন বিধিনিষেধের ফলে ক্রেতার সংখ্যা বলতে গেলে নাই বললেই চলে।করোনা কালীন বিশ্ব থেকে গ্রুপটির পুনরুদ্ধার অব্যাহত রয়েছে। ইতিমধ্যে জানা গেছে, দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে এইচ অ্যান্ড এম লোকসান কাটিয়ে গ্রীষ্মের কোয়ার্টারে খুচরা বিক্রেতাদের অনেকটাই ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছিল যা মহামারী দ্বারা বিশেষত কঠোরভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিল।

সংস্থাটির CEO হেলেনা হেলমারসন বলেন,”যদিও আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জগুলি এখনও অনেক দূরে, তথাপি সবচেয়ে খারাপ সময় অর্থাৎ দেউলিয়ার পূর্বে আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করছি প্রতিষ্ঠানটিকে বাঁচিয়ে রাখতে।” তিনি আরও জানান, বৈশ্বিক মহামারী করোনার সময়ে “আমরা অনলাইন ব্যবসায় কিছুটা শক্তিশালী এবং লাভজনক প্রবৃদ্ধি দেখতে পেয়েছি। তাই গ্রাহকদের চাহিদার প্রতি নজর রেখে আমরা অন লাইনে আরও বেশী তৎপর হওয়ার জন্য মনোনিবেশ করছি। বর্তমানে পৃথিবীর ৩৩ টি দেশে H&M এর অনলাইন বিক্রয়ের শাখা রহিয়াছে। H&M এর অধিকাংশ পোষাকই বাংলাদেশের বিভিন্ন গার্মেন্টসে তৈরী হয়।

 9,124 total views,  1 views today