অস্ট্রিয়ার সরকার প্রধানের কার্যালয়ের ১ জন কর্মকর্তার করোনা পজিটিভ,৩ জন কোয়ারেন্টাইনে!

মন্ত্রী পরিষদের সকল সদস্যদের করোনা টেস্ট,অর্থমন্ত্রী গেরনট ব্লুমেল তার সকল সাক্ষাৎকার স্থগিত করেছেন,অবকাঠামো (Infracstructure) মন্ত্রী Leonore Gewessler আজ থেকে কোয়ারেন্টাইনে

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ অস্ট্রিয়ার সরকার প্রধান চ্যান্সেলর কার্যালয়ের ১ জন উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা করোনায় সংক্রমিত হওয়ায় চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ এবং ভাইস চ্যান্সেলর ভার্নার কোগলারের ৩ জন কর্মকর্তাকে দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। সরকার প্রধান সেবাস্তিয়ান কুর্জ ও উপ প্রধান ভার্নার কোগলারেরও করোনার টেস্ট করা হয়েছে তবে তাদের রেজাল্ট নেগেটিভ এসেছে।

অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ জানায়,সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জের একজন ঘনিষ্ঠ কর্মকর্তার করোনা পজিটিভ সনাক্ত হওয়ায় সরকার প্রধান ও উপ প্রধান সহ চ্যান্সেলর কার্যালয়ের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের করোনার টেস্ট করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও মন্ত্রী পরিষদের সকল সদস্যকে করোনার টেস্ট করতে বলা হয়েছে। আক্রান্ত কর্মকর্তার সংস্পর্শে আশা সরকার প্রধান ও উপ প্রধানের অফিসের আরও ৩ জন কর্মকর্তাকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। চ্যান্সেলর ও ভাইস চ্যান্সেলর অফিসের সকল সাক্ষাৎকার সাময়িক স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

সংবাদ সংস্থা এপিএ জানান,গতকাল সোমবার সরকার কর্তৃক পরিচালিত করোনা পরীক্ষাগুলি কেবল আরও একটি পজিটিভ ফলাফল নিয়ে এসেছিল; অবকাঠামো মন্ত্রনালয়ের রাজ্য সম্পাদক ম্যাগনাস ব্রুনার এর একজন কর্মকর্তার করোনা পজিটিভ সনাক্ত হয়েছ। ফলে উক্ত কর্মকর্তার সংস্পর্শে আসায় অর্থাৎ বৈঠক করার কারনে অস্ট্রিয়ার ফেডারেল সরকারের অবকাঠামো মন্ত্রনালয়ের দ্বায়িত্ব প্রাপ্ত মন্ত্রী Leonore Gewessler আজ এক টুইট বার্তায় জানান, তার মন্ত্রনালয়ের এক কর্মকর্তার করোনা পজিটিভ সনাক্ত হওয়ায় তিনি কোয়ারেন্টাইনে যাচ্ছেন।

সংবাদ সংস্থা এপিএ জানিয়েছেন বুধবার যথাযথ করোনার বিধিনিষেধ মেনে মন্ত্রি পরিষদের পূর্ব নির্ধারিত বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। তবে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকের পর কোন প্রেস কনফারেন্স হবে কিনা সে সম্পর্কে কিছু বলা হয় নি।

এদিকে আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৯২৩ জন এবং ৪ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। রাজধানী ভিয়েনাতেই আজ সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৩৯৯ জন। এই পর্যন্ত অস্ট্রিয়ায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৯,৮১৯ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৮২২ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ৩৯,৭৯০ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ১০১ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৪৯৮ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

 

 9,295 total views,  1 views today