ইইউ (EU) করোনার ট্র্যাফিক লাইটে অস্ট্রিয়া লাল জোনে !

অস্ট্রিয়ায় বর্তমানে প্রতি ১ লক্ষ জনপদে ৮২,২ জন আক্রান্ত !

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ অস্ট্রিয়ার জন্য একটি দুঃসংবাদ। কেননা মঙ্গলবার ১৩ অক্টোবর ব্রাসেলসে ইইউর মন্ত্রীরা সমগ্র ইউরোপে করোনার ট্র্যাফিক লাইট সিস্টেম প্রবর্তনের জন্য একটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। সংক্রমণের মাত্রা অনুযায়ী ইউরোপের বিভিন্ন দেশকে বিভিন্ন রঙে চিন্হিত করা হয়েছে। প্রথম দিনের করোনার ট্র্যাফিক লাইট সিস্টেমে সমগ্র অস্ট্রিয়াকেই করোনার সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চল লাল রঙে রঞ্জিত করা হয়েছে।

অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ জানায়,জার্মানির ইউরোপীয় মন্ত্রী মাইকেল রথ বলেন এই লাইটিং সিস্টেম প্রবর্তনের ফলে ভ্রমণের বিধিনিষেধ আরোপে ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশ সমূহের মধ্যে সমন্বয় সাধন করতে এবং সদস্য দেশ সমূহের বর্তমান করোনার পরিস্থিতি পর্যালোচনার উদ্দেশ্যে ইইউ করোনার ট্র্যাফিক লাইটটি ইউরোপীয় স্বাস্থ্য সংস্থা ইসিডিসির একটি কার্ড যা সদস্য দেশগুলির তথ্যের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে। ইউরোপের দেশ সমূহে গত দুই সপ্তাহে প্রতি ১,০০,০০০ (এক লক্ষ) জনপদে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা, নেতিবাচক পরীক্ষার তুলনায় ইতিবাচক পরীক্ষার হার এবং সাধারণভাবে পরীক্ষার হারের উপর ভিত্তি করে এই নতুন লাইট সিস্টেমটি তৈরী করা হয়েছে। মাইকেল রথ আরও বলেন,”আমাদের চলাচলের স্বাধীনতা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং আমাদের নাগরিকদের তাদের ভ্রমণ সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত তথ্য প্রদানের জন্য আমাদের সমন্বয় নিশ্চিত করা আমাদেরই যৌথ দায়িত্ব।

সে সমস্ত দেশকে লাল জোনে দেওয়া হয়েছে যাদের নতুন সংক্রমণ ৫০ এর চেয়ে বেশি বা ইতিবাচক পরীক্ষার হার চার শতাংশ বা তার বেশি, বা নতুন সংক্রমণের হার ১৫০ এর বেশী হলে। এই জাতীয় ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চলের থেকে আগতদের, ইইউ দেশগুলি তাদের দেশে কোয়ারেন্টাইন ব্যবস্থা এবং করোনার টেস্ট নির্ধারণ করতে পারেন। এটি অস্ট্রিয়ার জন্য খারাপ সংবাদ, কারণ ইইউ মঙ্গলবার থেকে অস্ট্রিয়াকে একটি “রেড জোনে” ফেলেছে। অস্ট্রিয়ায় বর্তমানে প্রতি ১,০০,০০০(এক লক্ষ) জনপদে ৮২,২ জন করোনায় আক্রান্ত। তাই অস্ট্রিয়া EU এর ট্র্যাফিক আলোর “লাল” অঞ্চলে স্পষ্টভাবে চিহ্নিত হয়েছে।

এজিইএস ড্যাশবোর্ড অনুসারে,অস্ট্রিয়ায় মহামারী শুরুর পর থেকে ১৮,২২,৯৩১ জনের করোনার পরীক্ষা করা হয়েছে এবং এর মধ্যে ৫৬,৫৯১ জনের করোনা পজিটিভ সনাক্ত হয়েছে। এটি ৩,১ শতাংশ হারের সাথে মিলে যায়।

ইউরোপীয় ইউনিয়নে (EU) নিযুক্ত অস্ট্রিয়ার মন্ত্রী Karoline Edtstadler (ÖVP) ইইউ মন্ত্রীদের অস্ট্রিয়াকে লাল জোন ঘোষিত করার ভোটে অংশগ্রহণ করেন নি। তিনি সংবাদ সংস্থা এপিএকে জানান, আরও আলাপ আলোচনার পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া যেতে পারতো বলে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এদিকে আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১,০২৮ জন এবং ৬ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। আজ রাজধানী ভিয়েনাতে সংক্রমিত হয়েছেন ৩০৬ জন। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫৭,৩২৬ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৮৬১ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ৪৪,৯৪৯ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১১,৫১৬ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আছেন ১০৭ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৬১১ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাসস্থান এ আইসোলেশনে আছেন।

 

 9,533 total views,  1 views today