অস্ট্রিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলেকজান্ডার শ্যাচলেনবার্গ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন !

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১,৭৪৭ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৭ জন !

সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জের উদ্বেগ প্রকাশ !

 

 অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলেকজান্ডার শ্যাচলেনবার্গ অস্ট্রিয়ার প্রথম মন্ত্রী যিনি করোনার ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তবে বলা হয়েছে যে, তার কোনও লক্ষণ নেই অর্থাৎ উপসর্গ বিহীন সংক্রমিত এবং তিনি বাসায় শারীরিক ভাবে বেশ ভালো আছেন।

আজ শনিবার ১৭ অক্টোবর সকালে অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ কে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনৈক মুখপাত্র এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। মুখপাত্র বলেন, ৫১ বৎসর বয়স্ক পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শুক্রবার বিকালে রুটিন পরীক্ষায় পজিটিভ সনাক্ত হলে মন্ত্রীর নিকটতম কর্মচারীদেরও কোয়ারেন্টাইন ঘোষণা করা হয়েছে।

বুধবার ১৪ অক্টোবর শ্যাচলেনবার্গ মন্ত্রিপরিষদ এবং জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশনে অংশগ্রহণ করেছিলেন। তবে অন্যান্যদের মতো তিনিও মাস্ক পরিহিত অবস্থায় ছিলেন। তিনি কোথায় এবং কখন করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন তা স্পষ্ট নয়। পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে তার সংক্রমণের বিষয়টি মন্ত্রিপরিষদ ও জাতীয় সংসদকে আনুষ্ঠানিকভাবে অবহিত করা হয়েছে এবং যারা মন্ত্রীর সান্নিধ্যে ছিলেন তাদের সতর্কতার জন্য কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

এপিএ আরও জানায় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে, আজ শনিবার সরকারের সকল সদস্যদেরও করোনা পরীক্ষার করা হবে। কিছুটা ধারণা করা হচ্ছে পররাষ্ট্রমন্ত্রী শ্যাচলেনবার্গ সোমবার Luxemburg এ ইইউ পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের কাউন্সিলে সংক্রামিত হতে পারেন।

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় সংক্রমণ সনাক্ত হয়েছে ১,৭৪৭ জন। অস্ট্রিয়ায় এটাই ছিল একদিনে সর্বোচ্চ সংখ্যক সংক্রমণের রেকর্ড। আজ রাজধানী ভিয়েনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫৯৯ জন। অবশ্য প্রতিদিনের নিয়মিত সকালের ব্রিফিংয়ে বলা হয়েছিল ৮২৮ জন। পরবর্তীতে দুপুরে ভিয়েনা রাজ্যের স্বাস্থ্য বিষয়ক কাউন্সিলর পিটার হ্যাকার সংশোধন করে জানান গত ২৪ ঘন্টায় ভিয়েনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫৯৯ জন। অনিচ্ছাকৃত এই টেকনিক্যাল ভুলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

আজ অস্ট্রিয়ার সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ অস্ট্রিয়া এবং ইউরোপে করোনা ভাইরাসের অব্যাহত সংক্রমণ বৃদ্ধিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তিনি আজ এক টুইট বার্তায় বলেন,

“করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ হয়ে উঠছে পুরো ইউরোপ জুড়ে এবং অস্ট্রিয়াতেও করোনার সংক্রমণ আশঙ্কাজনক ভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি দেশের জনগণের উদ্দেশ্যে বলেন,সংক্রমণ বিস্তার রোধে আমাদের সকলেরই ব্যক্তিগত যোগাযোগ কমাতে হবে এবং সামাজিক দূরত্ব সহ করোনার সকল বিধিনিষেধ যথাযথভাবে মেনে চলতে হবে।”

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬৩,১৩৪ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৮৮৯ জন। করোনার থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ৪৮,৭৭১ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১৩,৪৭৪ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থার মধ্যে আছেন ১৩৩ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৭৩৪ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন।

 10,205 total views,  1 views today