অষ্ট্রিয়ায় বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা: রোগী শনাক্ত ২৭

নিউজ ডেস্কঃ অষ্ট্রিয়ায় এ পর্যন্ত ২৭ জন  করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে অস্ট্রিয়া  স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়। একইসঙ্গে ৩৫০ জন রোগীকে করোনা ভাইরাস সন্ধেহে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে ।

এদিকে, বাংলাদেশ দূতাবাস ও স্থায়ী মিশন ভিয়েনা থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বিভিন্ন দেশে করোনা ভাইরাস  ছড়িয়ে পড়ায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে। এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কৃত না হওয়ায় সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার পরামর্শও দেয়া হয়েছে। অষ্ট্রিয়া সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়  করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা ও পরামর্শের জন্য হট লাইন চালু করেছে ।

স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের সর্বশেষ বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, এখন পর্যন্ত অস্ট্রিয়ার বিভিন্ন শহরে ২৭ জন করোনা ভাইরাসের রোগী শনাক্ত হয়েছে।  তাই নাগরিকদের সর্বোচ্চ সতর্কতার সাথে চলাফেরা করা এবং বেশকিছু নিয়ম মেনে চলার অনুরোধ জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়-  

১। এ রোগের লক্ষন দেখামাত্র সরাসরি হাসপাতাল না গিয়ে অষ্ট্রিয়া স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক চালু করা হট লাইনে ফোন করা ।

২। চলাফেরার সময় মুখে মাক্স ব্যবহার করা। ৩। বাহির থেকে ঘরে প্রবেশ করে হাত-মুখ ধোঁয়া ।

৪। এন্ট্রি-ব্যাকটেরিয়াল লিকুইড ব্যাবহার করা ।

৫। কর্মস্থল ও ঘর সর্বদা পরিষ্কার রাখা ।

৬। জনাকীর্ণ এলাকা পরিহার করা ।

৭। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাসা ও কর্মস্থলের বাহিরে না যাওয়া এবং গনপরিবহনে সাবধানে চলাচল  করা ।

৮। হাঁচি বা কাশি এলে টিস্যু দিয়ে মুখ ঢেকে দেওয়া ।

৯। এ ছাড়া বেশি বেশি পানি পান করা ।

অষ্ট্রিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস ও স্থায়ী মিশনের প্রথম সচিব মোঃ তারাজুল ইসলাম  স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে- করোনা ভাইরাসের লক্ষন দেখামাত্র হাসপাতালে না গিয়ে সরাসরি ১৪৫০ নাম্বারে ফোন করুন এবং এ ভাইরাস সম্পর্কে তথ্য জানতে ০৮০০-৫৫৫-৬২১ নাম্বারে ফোন করুন । এ ছাড়া অষ্ট্রিয়া,  হাঙ্গেরি ও স্লোভেনিয়ায় বসবাসরত কোন প্রবাসী বাংলাদেশী করোনায় আক্রান্ত  দূতাবাসের হট লাইন নাম্বারে ০০৪৩-১-৩৬৮১১১১ ফোন করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। 

ভিয়েনা বাংলাদেশ দূতাবাস ও স্থায়ী মিশন অষ্ট্রিয়া প্রবাসী বাংলাদেশীদের আতঙ্কিত না হয়ে সতর্কতার সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলার আহ্বান জানিয়েছে।           

 3,295 total views,  1 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *